সেন্টমার্টিন – ১০টি সেরা রিসোর্ট (২০২৩)

সেন্টমার্টিন – সমুদ্রের বুকে এক টুকরো নীল ভালোবাসা। বাংলাদেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ।

নভেম্বর থেকে মার্চ সেন্টমার্টিন ভ্রমণের সময়। এসময় টেকনাফ থেকে সরাসরি জাহাজে করে সেন্টমার্টিন যাওয়া যায়।

এছাড়াও এখন কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম থেকে সেন্টমার্টিনগামী জাহাজ চলাচল শুরু হয়েছে।

সেন্টমার্টিনের হোটেল এবং রিসোর্ট সম্পর্কে অনেকের সঠিক ধারণা নেই।

সেন্টমার্টিন রিসোর্ট

  1. দ্বীপান্তর বিচ রিসোর্ট
  2. আটলান্টিক রিসোর্ট
  3. জ্যোৎস্নালয় বিচ রিসোর্ট
  4. গোধূলী ইকো রিসোর্ট
  5. ব্লু মেরিন রিসোর্ট
  6. ফ্যান্টাসি হোটেল এন্ড রিসোর্ট
  7. কিংশুক ইকো রিসোর্ট
  8. মিউজিক ইকো রিসোর্ট
  9. নীল দিগন্ত রিসোর্ট
  10. দ্যা বিচ ক্যাম্প রিসোর্ট

বি.দ্র. যেকোন রিসোর্টে বুকিং এর জন্য এখানে নক করুন

রিসোর্ট নামভাড়া
দ্বীপান্তর বিচ রিসোর্ট৬০০০-৮০০০/-
আটলান্টিক রিসোর্ট৭০০০-১৫,৫০০/-
গোধূলী ইকো রিসোর্ট১৮০০-৮০০০/-
জ্যোৎস্নালয় বিচ রিসোর্ট৩৫০০-৮০০০/-
ব্লু মেরিন রিসোর্ট৬০০০ এবং ১০,০০০/-
ফ্যান্টাসি হোটেল এন্ড রিসোর্ট৬০০০-১৩০০০/-
কিংশুক ইকো রিসোর্ট৩০০০-৪৫০০/-
মিউজিক ইকো রিসোর্ট৩০০০-৬০০০/-
নীল দিগন্ত রিসোর্ট৩৫০০-৭০০০/-
দ্যা বিচ ক্যাম্প রিসোর্ট২৫০০-৫০০০/-
বি.দ্র সময়ভেদে ভাড়া যেকোন সময় কম-বেশি করতে পারে

দ্বীপান্তর বিচ রিসোর্ট (Dwipantor Beach Resort)

দীপান্তর রিসোর্টটি সেন্টমার্টিন দ্বীপের পশ্চিম বিচে অবস্থিত। রিসোর্টের চারিদিকে রয়েছে প্রচুর নারিকেল গাছ। রিসোর্টের ঠিক সামনেই সমুদ্র সৈকত। জোয়ারের সময় রিসোর্টের দোরগোড়ায় পানি আছড়ে পড়ে। রিসোর্টটিতে সিঙ্গেল এবং ডুপ্লেক্স দুই ধরনের কটেজ রয়েছে।

অবস্থানঃ পশ্চিম বিচে
ভ্যান নিয়ে জেটিঘাট রিসোর্টের কাছাকাছি পর্যন্ত যাওয়া যায়। ভাড়া নিবে আনুমানিক ২০০-২৫০ টাকা।

রিসোর্ট ভাড়া

রুমের নামরুমের ক্যাপাসিটিভাড়া
বিচ ভিউ প্রিমিয়াম কাপল কটেজ২ জন৬০০০ টাকা
বিচ ভিউ প্রিমিয়াম ডুপেক্স কটেজ৪ জন৮০০০ টাকা
এক্সক্লুসিভ কাপল কটেজ২ জন৫০০০ টাকা
স্টুডিও কাপল রুম২ জন৪০০০ টাকা
স্টুডিও ফ্যামিলি রুম৪ জন৪৫০০ টাকা
এক্সট্রা বেড৭৫০ টাকা

রিসোর্ট সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে দ্বীপান্তর বিচ রিসোর্ট পোস্টটি পড়ুন।


আটলান্টিক (লাবিবা) রিসোর্ট (Atlantic/Labiba Bilash Resort)

দ্বীপের পশ্চিম বিচে সাগরের কোল ঘেঁষে আটলান্টিক রিসোর্ট। জোয়ারের সময় রিসোর্টের দাঁড়প্রান্ত পর্যন্ত সমুদ্রের পানি চলে আসে। রিসোর্টের দোতলার রুম থেকে সাগর দেখা যায়।

অবস্থানঃ পশ্চিম বিচে
ভ্যান নিয়ে জেটিঘাট রিসোর্টের কাছাকাছি পর্যন্ত যাওয়া যায়। ভাড়া নিবে আনুমানিক ২০০-২৫০ টাকা।

রিসোর্ট ভাড়াঃ ৭০০০ থেকে ১৫৫০০ টাকা পর্যন্ত।

Atlantic Resort Room Price List

রুমঃ ৪৩টি

ওয়েবসাইট

রেটিং,
ফেসবুক পেজঃ কোন রিভিউ নেই
গুগলঃ ৩.৭ (৮২টি রিভিউ)

রিসোর্টের সুবিধা সমূহঃ
১। রিসোর্টে খাবারের সুব্যবস্থা
২। লন্ড্রি সার্ভিস
৩। লবিতে স্যাটেলাইট টিভি
৪। ISD & NWD ফোন কানেকশন
৫। বিচ ভিউ রুম
৬। বিচের সামনে সমুদ্র


জ্যোৎস্নালয় বিচ রিসোর্ট (Josnaloy Beach Resort)

জ্যোৎস্নালয় রিসোর্টটি সেন্টমার্টিন দ্বীপের পশ্চিম বিচে অবস্থিত। রিসোর্টের চারিদিকে রয়েছে প্রচুর নারিকেল গাছ। রিসোর্টের ঠিক সামনেই সমুদ্র সৈকত। রিসোর্টের উঠোনে আড্ডা দেওয়ার জন্য ছাউনি দেওয়া মাচা তৈরি করা হয়েছে। যেখানে বসে সমুদ্র দেখতে দেখতে আড্ডা জমবে বেশ।

অবস্থানঃ পশ্চিম বিচে
ভ্যান নিয়ে জেটিঘাট রিসোর্টের কাছাকাছি পর্যন্ত যাওয়া যায়। ভাড়া নিবে আনুমানিক ২০০-২৫০ টাকা।

রুমঃ ১৫টি

রিসোর্ট ভাড়াঃ ৩৫০০ থেকে ৮০০০ টাকা পর্যন্ত

রুম ক্যাটাগরিরুমের নামভাড়া
এক্সক্লুসিভ কাপল কটেজশুকতারা৭০০০ টাকা
এক্সক্লুসিভ ভিলা (নিচ তলা)অনুরাধা৭০০০ টাকা
এক্সক্লুসিভ ভিলা (১ম তলা)সন্ধ্যাতারা৮০০০ টাকা
এক্সক্লুসিভ ইকো কটেজ (ফ্যামিলি/কাপল)ধ্রুবতারা, চিত্রা, বিশাখা৬৫০০ টাকা
ফ্যামিলি ডিলাক্স কটেজরিমঝিম ১,২৫০০০ টাকা
ডিলাক্স রুম (ডাবল বেড)ফালগুনী ১-৪৪৫০০ টাকা
ডিলাক্স রুম (থ্রিপল বেড)ফালগুনী ৫৫৫০০ টাকা
ইকোনমি (ডাবল বেড)ঝিনুক৪০০০ টাকা
ইকোনমি (কাপল বেড)ঝিনুক সিপি৩৫০০ টাকা

ফেসবুক পেজঃ  জ্যোৎস্নালয় বিচ রিসোর্ট (Josnaloy Beach Resort)


গোধূলী ইকো রিসোর্ট (Godhuli Eco Resort)

গোধূলি ইকো রিসোর্ট সেন্টমার্টিনের পশ্চিম বিচে অবস্থিত।

রুম ক্যাটাগরিভাড়া (টাকা)
হানিমুন কটেজ৫০০০-৫০০০
ডিলাক্স কটেজ৫৮০০
সুপার ডিলাক্স কটেজ৬৫০০
প্রিমিয়াম কটেজ৮০০০
রেগুলার টেন্ট (২ জন)১৮০০
ডিলাক্স টেন্ট (৪ জন)৩৫০০

রুম ক্যাটাগরি

  • প্রিমিয়াম কটেজ
  • হানিমুন কটেজ
  • সুপার ডিলাক্স কটেজ
  • ডিলাক্স রুম
  • টেন্ট ডিলাক্স
  • টেন্ট রেগুলার

সুবিধা সমূহ 

  • কমপ্লিমেন্টারি ব্রেকফাস্ট
  • কমপ্লিমেন্টারি টয়লেট্রিজ
  • মিনারেল ওয়াটার
  • নিজস্ব রেস্টুরেন্ট (৮০ জন ক্যাপাসিটি)
  • বার-বি-কিউ পার্টি
  • ক্যান্ডেল লাইট ডিনার
  • রুম সার্ভিস
  • নিজস্ব বিচ
  • ওপেন স্পেস এ কনফারেন্স করার সুব্যবস্থা
  • ট্রান্সপোর্টেশন সার্ভিস
  • সিকিউরিটি গার্ড
  • ২৪ ঘন্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ
  • ২৪ ঘন্টা পানি সরবরাহ
  • সিসিটিভি দ্বারা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ
  • প্রশস্ত মাচা
  • পর্যাপ্ত হ্যামক
  • বিচ চেয়ার
  • প্লে গ্রাউন্ড
  • নামাজ ঘর 
  • রিসোর্ট ও রুমের সামনে বড় খোলা অংশ
  • নারিকেল বাগান
  • পরিবেশ বান্ধব রুম

ব্লু মেরিন রিসোর্ট (Blue Marine Resort)

জেটিঘাট থেকে খুব কাছেই ব্লু মেরিন রিসোর্টটি অবস্থিত। দ্বীপের অন্যতম লাক্সারিয়াস রিসোর্ট।

অবস্থানঃ জেটিঘাটের কাছে

রিসোর্ট ভাড়াঃ ৬০০০ থেকে ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত

রুম সংখ্যাঃ ৪১টি

ওয়েবসাইট

রেটিং,
ফেসবুক পেজঃ ৩.৭ (১৮টি রিভিউ)
গুগলঃ ৪.৪ (১৭টি রিভিউ)

রিসোর্টের সুবিধা সমূহঃ
১। ভিআইপি এসি রুম (কাপল বেড/ডাবল বেড)
২। নিজস্ব রেস্টুরেন্ট
৩। বিচ ভিউ রুম

ফেসবুক পেজঃ ব্লু মেরিন রিসোর্ট (Blue Marine Resort)


ফ্যান্টাসি হোটেল এবং রিসোর্ট (Fantasy Hotel & Resort)

ফ্যান্টাসি হোটেল এবং রিসোর্টটি ২০২০ সালে উদ্ভোধন করা হয়েছে। থ্রিস্টার মানের লাক্সারিয়াস রিসোর্ট।

অবস্থানঃ জেটিঘাটের কাছে

রিসোর্ট ভাড়াঃ ৬০০০ থেকে ১৩০০০ টাকা পর্যন্ত

রুম সংখ্যাঃ ১০০+

ওয়েবসাইট

রেটিং,
ফেসবুক পেজঃ ৪.৪ (৩৯টি রিভিউ)
গুগলঃ ৩.৭ (১৪৪টি রিভিউ)

রিসোর্টের সুবিধা সমূহঃ
১। প্রতিটি হাইস্পিড ইন্টারনেট সুবিধা
২। ল্যাপটপের জন্য ডেডিকেটেড পোর্ট
৩। স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল
৪। প্রাইভেট ভিআইপি লাউঞ্জ
৫। সিসি ক্যামেরা
৬। নিজস্ব রেস্টুরেন্ট
৭। কমপ্লিমেন্টারি ব্রেকফাস্ট
৮। এসি রুম
৯। বিচ ভিউ রুম
১০। তাঁবুতে থাকার ব্যবস্থা

ফেসবুক পেজঃ ফ্যান্টাসি হোটেল এবং রিসোর্ট (Fantasy Hotel & Resort)


কিংশুক ইকো রিসোর্ট (Kingshuk Eco Resort)

কিংশুক ইকো রিসোর্ট বিচের একাবারে পাশে অবস্থিত নিরিবিলি একটি ইকো রিসোর্ট।

অবস্থানঃ গলাচিপা
ভ্যান নিয়ে জেটিঘাট রিসোর্টের কাছাকাছি পর্যন্ত যাওয়া যায়। ভাড়া নিবে আনুমানিক ৩০০-৪০০ টাকা।

রিসোর্ট ভাড়াঃ ৩০০০ থেকে ৪৫০০ টাকা পর্যন্ত

রেটিং,
ফেসবুক পেজঃ ৪.৭ (১৫টি রিভিউ)
গুগলঃ ৩.৮ (১৮৩টি রিভিউ)

রিসোর্টের সুবিধা সমূহঃ
১। নিজস্ব রেস্টুরেন্ট
২। বাঁশের কটেজ
৩। বিচ ভিউ রুম
৪। তাঁবু

ফেসবুক পেজঃ কিংশুক ইকো রিসোর্ট (Kingshuk Eco Resort)


মিউজিক ইকো রিসোর্ট (Music Eco Resort)

দ্বীপের শেষ সীমানায় দক্ষিন-পশ্চিম বিচে মিউজিক ইকো রিসোর্ট অবস্থিত। এর পরেই ছেঁড়াদ্বীপ শুরু। রিসোর্টে থাকার ব্যবস্থা কিছুটা ভিন্ন। কন্টেইনার এবং তাঁবুতে থাকতে হবে। সেন্টমার্টিনের রক বিচের কাছে হওয়ায় দ্বীপের ভিন্ন সৌন্দর্য দেখা যাবে। রিসোর্ট থেকেই প্রচারনা চালানো হয়, এই রিসোর্ট সবার জন্য নয়। রিসোর্টে যেতে যে কষ্ট হয়, সেখানে থাকার পর তা নিয়ে কোন অভিযোগ থাকবে না।

অবস্থানঃ দ্বীপের দক্ষিন-পশ্চিমে রক বিচের কাছে
রিসোর্টে যাওয়ার কয়েকটি উপায় রয়েছে পায়ে হেঁটে দেড় ঘন্টার মত সময় লাগবে, বাইক বা সাইকেল নিয়ে, রিসোর্টের স্পিডবোট সার্ভিস নিয়ে। স্পিডবোট সার্ভিস নিয়ে যাওয়াটাই সবচেয়ে ভালো।

রিসোর্ট ভাড়াঃ তাঁবু ৩০০০/৪০০০/৬০০০ টাকা, কন্টেইনার ৪০০০/৫০০০ টাকা।

রুম সংখ্যাঃ ৫টি কন্টেইনার, ৭টি তাঁবু

ওয়েবসাইট

রেটিং,
ফেসবুক পেজঃ কোন রিভিউ নেই
গুগলঃ ৪.৩ (১৩৫টি রিভিউ)

রিসোর্টের সুবিধা সমূহঃ
১। নিজস্ব রেস্টুরেন্ট
২। রক বিচ
৩। তাঁবু
৪। শব্দহীন শান্ত পরিবেশ
৫। ১৫ মিনিট পায়ে হেঁটে ছেঁড়াদ্বীপ
৬। রিসোর্টের কাছেই ম্যানগ্রোভ বন
৭। সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত দেখার সুবিধা

ফেসবুক পেজঃ মিউজিক ইকো রিসোর্ট (Music Eco Resort)


নীল দিগন্ত রিসোর্ট (Nil Digante Resort)

দ্বীপের দক্ষিন-পশ্চিমে বিচের পাশে নীল দিগন্ত রিসোর্টটি অবস্থিত।

অবস্থানঃ দক্ষিন-পশ্চিমে কোনাপাড়ায়
ভ্যান নিয়ে জেটিঘাট রিসোর্টের কাছাকাছি পর্যন্ত যাওয়া যায়। ভাড়া নিবে আনুমানিক ২০০-২৫০ টাকা।

রিসোর্ট ভাড়াঃ ৩৫০০ থেকে ৭০০০ টাকা পর্যন্ত।

রুমঃ ৩৮ টি

ওয়েবসাইট

রেটিং,
ফেসবুক পেজঃ ৪.৩ (১২টি রিভিউ)
গুগলঃ ৪.১ (৬১০টি রিভিউ)

রিসোর্টের সুবিধা সমূহঃ
১। রিসোর্টের নিজস্ব রেস্টুরেন্ট
২। হ্যামক

ফেসবুক পেজঃ নীল দিগন্ত রিসোর্ট (Nil Digante Resort)


দ্যা বিচ ক্যাম্প রিসোর্ট (The Beach Camp Resort)

সেন্টমার্টিনের পশ্চিম বিচে সবচেয়ে বড় বীচ ভিউ রিসোর্ট। এটি সম্পূর্ণ একটি ইকো রিসোর্ট। বাঁশ, কাঠ, টিন ও ছনে সাজানো এই রিসোর্টটি। যারা মূলত নির্জন ও নীরবতা পছন্দ করেন তাদের কাছে রিসোর্টটি পছন্দ হবে।

অবস্থানঃ পশ্চিম বিচে
ভ্যান নিয়ে জেটিঘাট রিসোর্টের কাছাকাছি পর্যন্ত যাওয়া যায়। ভাড়া নিবে আনুমানিক ২০০-২৫০ টাকা।

রিসোর্ট ভাড়াঃ ২৫০০ থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত।

রুমঃ ৪টি, তাঁবু ৩টি

রুম ক্যাটাগরি

  • প্রিমিয়াম কাপল কটেজ (বিচ ভিউ)
  • এক্সক্লুসিভ কাপল কটেজ (বিচ ভিউ)
  • এক্সক্লুসিভ ডাবল কটেজ (বিচ ভিউ)
  • ইকোনমি সিঙ্গেল কটেজ (বিচ ভিউ)
  • তাঁবু

রিসোর্টের সুবিধা সমূহঃ

  • রিসোর্টে খাবারের সুব্যবস্থা
  • হ্যামক
  • রিসোর্টের সামনে সমুদ্র
  • দোলনা

ফেসবুক পেজঃ The Beach Camp Resort

সেন্টমার্টিন রিসোর্ট বুকিং সংক্রান্ত পরামর্শ

  • সময়ভেদে প্রতিটি রিসোর্টের রুম ভাড়া উঠানামা করে। প্রতিমাসের শুক্র-শনিবারের রুম ভাড়া তুলনামূলকভাবে বেশি থাকে। সপ্তাহের অন্যান্য দিনগুলোতে ডিসকাউন্ট পাওয়া যায়।
  • রিসোর্ট বুকিং করার সময় তার অবস্থান ভালোভাবে জেনে নিবেন। প্রতিটি রিসোর্টের অবস্থান সম্পর্কে আমি ধারনা দেওয়ার চেষ্টা করেছি।
  • রিসোর্ট বুকিং এর সময় অগ্রিম পেমেন্ট করতে হয়ে সেক্ষেত্রে ভালোভাবে যাচাই করে নিবেন।

বি.দ্র. যেকোন রিসোর্টে বুকিং এর জন্য এখানে নক করুন

আরো পড়ুন

Spread the love